pexels.com – Image সংগ্রহ করার জন্য আমার প্রিয় একটি সাইট

আমাদের কাজের জন্য গ্রাফিক রিলেটেড অনেক এলিমেন্ট আছে, যেগুলো আমরা অনলাইন থেকে সংগ্রহ করে থাকি। ফ্রি এবং প্রিমিয়াম – দুই ধরণের সার্ভিসই আছে। তবে সাধারণত ফ্রি সাইটগুলোই বেশি ভিজিট হয়। আইকন, ফন্ট, ইমেজ ইত্যাদি।

আজকে আমরা ফ্রি ইমেজের একটি সাইট নিয়ে কথা বলবো।

এখন পর্যন্ত ফেসবুক এবং আরও অন্যান্য মাধ্যম থেকে আমরা অনেক অনেক ফ্রি ইমেজ সাইট সম্পর্কে জানতে পেরেছি, সেগুলোর লিস্ট করতে গেলে বিশাল পোস্ট হয়ে যাবে। আজকে আমরা সেদিকে যাবো না। আজ আমরা শুধু একটি সাইট নিয়ে কথা বলবো, সাইটটির নাম শিরোনামের মধ্যে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন – pexels.com 

আমরা এই সাইটের সুবিধাগুলো এক এক করে বর্ণনা করবো, প্রতিটি বর্ণনার আগে ছোট্ট করে একটা শিরোনাম দেবো, তো চলুন শুরু করা যাক।

 

একাউন্ট করার দরকার হয় না

এবং ক্যাচাল-মুক্ত। মানে ক্যাপচা-মুক্ত আর কি। অনেক ফ্রি ইমেজের সাইট আছে, যেগুলো থেকে ইমেজ ডাউনলোড করার জন্য একটি একাউন্ট করা লাগে। pexels.com এ ধরণের সকল ব্যাপার-স্যাপার থেকে মুক্ত। আবার অনেক সাইট আছে যেগুলো থেকে ফ্রি ইমেজ ডাউনলোড করতে একাউন্ট করা লাগে না। কিন্তু ক্যাপচা পূরণ করা লাগে। যেমন নিচের ছবিটা দেখেন, pixabay থেকে নেয়া স্ক্রিনশট।

pixabay থেকে যে কোন ইমেজ ডাউনলোড করার জন্য গুগলের এই মহাবিরক্তিকর ক্যাপচা পূরণ করতে হয়। HOW SAD!

 

আর pixabay থেকে কোন ইমেজের অরিজিনাল সাইজে ডাউনলোড করতে একাউন্ট করতে হয়। কিন্তু আমাদের pexels.com থেকে কোন ইমেজ অরিজিনাল সাইজে ডাউনলোড করতে একাউন্ট লাগে না এবং ক্যাপচা তো লাগেই না, যেটা প্রথমেই বললাম।

 

ডাউনলোড করার সময় ইমেজের সাইজ নির্ধারণ করা যায়

আমরা বিভিন্ন প্রোজোক্টের জন্য ইমেজ সংগ্রহ করি। একটি সেকশানের জন্য নির্ধারিত ডাইমেনশ্যান অনুযায়ী ইমেজগুলো ফটোশপে অথবা এ ধরণের কোন টুলের সাহায্যে কাটাকাটি করি। কিন্তু …

pexels.com আমাদেরকে এই ছোট্ট কাজের জন্য বড় ঝামেলা থেকে বাঁচাতে পারে। কারণ pexels.com থেকে ইমেজ ডাউনলোড করার সময়ই আপনি চাইলে ইমেজের সাইজ নির্ধারণ করে দিতে পারেন। আর আপনি কোন ইমেজের সাইজ নির্ধারণ করে দিলে, সেই ইমেজের অরিজিনাল ডাইমেনশ্যানের সাথে না মিলার কারণ ডাউনলোড করা ইমেজটির কোন সমস্যা হবে না।

অর্থাৎ, মনে করা যাক আমি 1920×500 সাইজের একটি ইমেজকে 200×600 সাইজে কাটতে চাই। তাহলে শুধু আমার height এবং width বলে দিলেই হবে, আমার দেয়া সাইজেই ইমেজটি ডাউনলোড হবে এবং ডাইমেনশ্যান না মিলার কারণে ইমেজের কোন ক্ষতি হবে না।

যেমন- নিচের ছবিটি দেখুন

মনে করি এই সেকশানের ইমেজের জন্য আমার দরকার 200×500 সাইজের ইমেজ। তো আমি pexels.com সাইটে গিয়ে যে ইমেজটি আমার পছন্দ, সেটা ওপেন করে Custom size এ ক্লিক করবো, তারপর নিজের height এবং width দিয়ে Download বাটনে ক্লিক করবো, ব্যস, হয়া গেল। আরও স্পষ্ট করে বোঝার জন্য নিচের ছবিটি দেখুন-

লাল দাগ দেয়া অংশটিতে ক্লিক করতে হবে, তারপর নিজের ইচ্ছেমত সাইজ দিয়ে ডাউনলোড করা, ব্যস, ঝামেলা শেষ। ছোটখাট কাজের জন্য এখন আর ফটোশপ দিয়ে কাটাকাটি করার দরকার নাই।

 

যে কোন ইমেজকে অনলাইনেই এডিট করতে পারবেন

আপনি একটি কভার ফটো বানাতে চাচ্ছেন, বা কোন ব্যানার, তো- সাইটে ঢুকে একটি ইমেজ পছন্দ হলো, তখন সেটিকে এডিট করার জন্য () থেকে ইমেজটিকে অন্য একটি সাইটে নিয়ে এডিট করতে পারবেন। আর এই অন্য সাইটটির নাম হলো ()

নিচের ছবিটা দেখুন-

pexels.com থেকে কোন ইমেজ ওপেন করলে ইমেজটি পাশে এই ডাউনলোড বাটনটি থাকে। ডাউনলোড বাটনটির পাশে লাল দাগ দিয়ে চিহ্নিত করা যে ছোট্ট বাটনটি দেখতে পাচ্ছেন, সেটিতে ক্লিক করলে আপনার ওপেন করা ইমেজটি snappa.com সাইটে গিয়ে ওপেন হবে সব ধরণের এডিট-টুলসহ। তবে snappa.com সাইটে যদি আপনি এডিট করতে চান, অর্থাৎ- এখন যে সুবিধাটির কথা বললাম, সেটি পেতে হলে আপনাকে আগে snappa.com  সাইটে একাউন্ট করা লাগবে, তাহলেই এই সুবিধাটি পেতে পারেন।

 

অনেক দিন পর লিখলাম। দোয়া করবেন যেন বেশি বেশি লিখতে পারি আরও। আজকের মত বিদায়।

মন্তব্য

মন্তব্য